সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৩:৪০ পূর্বাহ্ন

নিখোঁজের পর নোবিপ্রবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

ঢাকা অফিস / ২৩ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৩:৪০ পূর্বাহ্ন

আত্মহত্যা করে মৃত্যুবরণ করেছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) শিক্ষার্থী ফারহানুজ্জামান রাকিন। দীর্ঘদিন ধরে মানসিক চাপ থেকে তার এই আত্মহত্যার সিদ্ধান্ত বলে ধারণা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহপাঠীদের। এর আগে সপ্তাহখানেক নিখোঁজ ছিলেন রাকিন। সোমবার ঢাকার মানিকদি নিজ বাসায় আত্মহত্যা করেন এই শিক্ষার্থী। তিনি নোবিপ্রবি কৃষি বিভাগের ২০১৭-১৮ বর্ষের শিক্ষার্থী। গতকাল বেলা ১১টার দিকে রাকিন ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট এলাকার নিজ বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে। রাকিনের গ্রামের বাড়ি চাঁদপুরের কচুয়া থানার শ্রীরামপুর গ্রামে। তার বাবা প্রবাসী। মা এবং বোনের সঙ্গে ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট এলাকায় থাকতেন রাকিন। তবে সে কী কারণে আত্মহত্যা করেছেন তার কারণ পরিবার জানাতে পারেননি। এদিকে সহপাঠীদের থেকে জানা যায়, নিজ বাসার গোসল খানায় ডিশ লাইনের তার পেচিয়ে আত্মহত্যা করেন রাকিন। পরবর্তীতে পুলিশের উপস্থিতিতে সেখান থেকে উদ্ধার করে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। আরও জানা যায়, আপন মা না থাকায় দীর্ঘদিন পারিবারিক নানা সমস্যার সম্মুখীন ছিলেন এই শিক্ষার্থী। তবে ক্যাম্পাস খোলা থাকাকালীন সময়ে পারিবারিক বিভিন্ন সমস্যা চলাকালে পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ না রেখে বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে মিশে সময় কাটিয়ে দিতেন। এমনকি গত বছর লকডাউন শিথিল করা হলে নোয়াখালী এসে বহুদিন বন্ধু বান্ধবের সঙ্গে থেকে গেছেন। সহপাঠিদের মতে, দীর্ঘ সময় ধরে ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় সার্বক্ষণিক পরিবারের সঙ্গে থেকে তার ওই সব সমস্যা চরমে পৌঁছে যায়। এজন্য বেশ কিছুদিন ধরে চরম বিষন্নতায়ও ভুগছিলেন। এর মাঝে একবার নিখোঁজ হলেও অল্প কিছুদিন পরেই তাকে ফিরে পাওয়া যায়। কিছুদিন যেতেই এবার আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছেন ফারহানুজ্জামান রাকিন। এ বিষয়ে নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) প্রক্টর অধ্যাপক ড. নেওয়াজ মোহাম্মদ বাহাদুর বলেন, আমরা বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হয়েছি। ছেলেটা এর আগেও সাতদিন নিখোঁজ ছিল। আমরা তাকে অনেক খোঁজাখুঁজির পর পেয়েছিলাম। তারপর তার পরিবারের কাছে পৌঁছে দিয়েছিলাম। এই মৃত্যুতে তার সহপাঠীরাসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী এবং সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পর্যায় থেকে শোক প্রকাশ করা হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর