সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
অনৈতিক কাজ করতে মেহজাবিনকে বাধ্য করেছিল মা ১০ হাজার কোটি টাকার প্রজেক্ট ৫০ হাজার কোটি টাকা হয়ে যাচ্ছে : ফখরুল কুষ্টিয়ায় উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র বিতরণ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জুলাইয়েও খুলছে না তিস্তার পানি বিপৎসীমার কাছাকাছি, আতঙ্কে ৬৩ চরের মানুষ কুষ্টিয়ার খোকসায় যৌন নিপীড়নের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার মিয়ানমার নিয়ে জাতিসংঘের প্রস্তাবে নেই রোহিঙ্গা ইস্যু, হতাশ বাংলাদেশ দিনের আলোতেও অন্ধকার দেখে বিএনপি : কাদের বাংলাদেশকে টিকা দেওয়ার সময় অনিশ্চিত : ভারতীয় হাইকমিশনার কনজার্ভেটিভ পার্টি ছেড়ে লেবার পার্টিতে জন বারকো, সমালোচনা করলেন বরিসের

চুয়াডাঙ্গায় ইয়াসের প্রভাব : কয়েক সেকেন্ডের ঝড়ে লন্ডভন্ড দুটি গ্রাম

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন

ইয়াস কেটে গেছে রাতেই। হালকা বাতাস ছিল সারারাতজুড়ে। চুয়াডাঙ্গায় ভোরের আলো ফোটার পর পরই বদলে গেল আবহাওয়া। বদলে গেল চুয়াডাঙ্গার আকাশ। চারদিক কালোকরে দমকা হাওয়া কিছুক্ষণ পর রূপ নেয় কয়েক সেকেন্ডের টর্নেডোয়। মুহূর্তেই ল ভ চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার নান্দবার ও আইন্দিপুর গ্রাম। এর ঘর ভেঙেছে তো ওর ঘরের টিন উড়ে ঠেকেছে নারিকেল গাছের মাথায়। ইয়াসের প্রভাবে সৃষ্ট কয়েক সেকেে র এই ঝড়ে অর্ধশতাধিক ঘরবাড়ি, গাছ পালা, পানের বরজের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। মাত্র কয়েক সেকে স্থায়ী এই ঝড়ে সবকিছু ল ভ হয়ে গেছে। সবকিছু হারিয়ে পরিবারগুলো এসে দাঁড়িয়েছে খোলা আকাশের নিচে। খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘটনাস্থলে গিয়ে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে প্রশাসন। ভুক্তভোগীরা জানান, আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঝড়ে হানা দেয়। কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই অনেকেরই ঘরের চাল, টিনের বেড়া উড়ে যায়। গাছের ডালপালা ভেঙে যায়। অনেক গাছ উপড়ে যায়। অনেকের টিনের চাল উড়ে নিরুদ্দেশের ঘটনাও ঘটে। আইন্দিপুর গ্রামের মাহাবুল ইসলাম জানান, সকালে হঠাৎ ৩০ সেকেন্ডের হু হু শব্দের ঘুর্ণিঝড়ে সব ল ভ করে দিল। মাঠের পানের বরজগুলো সব ভেঙে গেছে। ঘুর্ণিঝড়ে কয়েক কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে গ্রামের শতাধিক পরিবারের। খবর পেয়ে বিকেলে আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার এনামুল হক ও চিৎলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম বিপ্লব ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোকে তাৎক্ষণিকভাবে খাদ্য সহায়তা দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল। সরকারিভাবে আরও সহায়তা করা হবে বলেও জানান তিনি। এছাড়া নান্দবার গ্রামের যুব সমাজের সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য রান্না করা খাবার বিতরণ করেন। জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার জানান, প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্থদের তালিকা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। তাঁদেরকে পূনর্বাসনে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর