বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
ঘুষ দিয়ে জমি রেজিস্ট্রি করতে হলো ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলকে! রওশন আরা খাতুনের মৃত্যুতে মেহেদী রুমীর শোক কুষ্টিয়ায় উর্দ্ধমুখী সংক্রমনে ২৪ঘন্টায় আক্রান্ত ১২২, মৃত্যু-৫, জেলায় মোট মৃত্যু ২৬২জন ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু কুষ্টিয়ায় করোনায় আরো চার জনের মৃত্যু এসডিজি বাস্তবায়নে বাংলাদেশ বিশ্বের শীর্ষ ৩ দেশের একটি : প্রধানমন্ত্রী বিশ্বের বড় বড় পন্ডিতরা টিকার নামে মুলা দেখিয়ে যাচ্ছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইউপি নির্বাচনে ভোট কলঙ্কের আরেকটি অধ্যায়ের যোগ হলো : পীর সাহেব চরমোনাই লকডাউনের নামে সরকার প্রতারণা করছে : মির্জা ফখরুল উন্নত চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে দ্রুত বিদেশে পাঠানোর দাবি বিএনপির তিন দেশে নারী পাচারে ১০টি নাম ব্যবহার করতো নদী

কুমারখালীতে ভিক্ষুক হত্যা মামলার পলাতক আসামী সোহেল ৫ লক্ষ টাকার সরকারি গাছ বিক্রি করলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৬ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ন

কুমারখালীতে ভিক্ষুক হত্যা মামলার প্রধান আসামী সোহেল এখনও ধরা ছোয়ার বাইরে। ক্ষমতা, রাজনৈতিক প্রভাব আর টাকার দাপটে পুলিশ এখনও সোহেল সহ অন্যান্য আসামীদের আটক করেনি বলে দাবি ওই ভিক্ষুক পরিবারের। স্থানীয় ও গ্রামবাসী সূত্রে জানা গেছে, অভিযুক্ত সোহেল একসময় জাসদের তুমুল প্রভাবশালী নেতা ছিলেন। হত্যা মামলা ও নানা অপকর্মের হোতা সোহেল সদকী ইউনিয়নের দরবেশপুর গ্রামের মৃত শামসুদ্দিন প্রামানিকের ছেলে। তবে প্রথমে জাসদের রাজনীতির সাথে থাকলেও পরবর্তীতে সরকার পরিবর্তনের সাথে সাথে রাজনৈতিক ভৌল পরিবর্তন করে যোগ দেন আওয়ামীলীগে। তবে অভিযুক্ত এই সোহেল শুধুমাত্র ভিক্ষুক পিটিয়ে হত্যা মামলার সাথে জড়িত নন। এলাকায় বিভিন্ন অপকর্মের সাথে রযয়েছে তার ব্যাপক যোগসাজশ। বিশেষ করে জমি দখল, ছোট বড় বৃদ্ধকে মারপিট, সরকারি সম্পদ বিক্রি সহ নানান অভিযোগ। এছাড়াও জানা গেছে চলতি বছরের মার্চ মাসে প্রথম দিকে সদকী ইউনিয়নের দরবেশপুর গ্রামের বিমল মাষ্টার পাড়াই বড় পুকুর পারের প্রায় ৪০ টি মেহগুনি সহ বেশ কয়েক রকমের রাস্তার উপরের গাছ কেটে বিক্রি করে দেয় ভিক্ষুক হত্যা মামলার মূল আসামী সোহেল। গাছগুলার আনুমানিক দাম ৫ লক্ষ টাকার অধিক। অথচ রাস্তার পাশে গাছ বিক্রি করায় ইতি মধ্যেই রাস্তাতে ভাঙ্গন ধরেছে। এমন থাকলে বর্ষা মৌসুমে গাছ কেটে ফেলায় রাস্তা ধসে যাবে। সরকারি গাছ রাস্তার পাশ থেকে সোহেল কেটে বিক্রি করলেও নজরে আসেনি প্রশাসনের। কোন প্রকার ব্যবস্থা গ্রহনের সংবাদও পাওয়া যায়নি। তবে সাধারন জনগনের ধারনা কোন এক অদৃশ্য শক্তি, রাজনৈতিক প্রভাব ও অর্থের ক্ষমতার বলে সোহেল এসব কাজ করে যাচ্ছে। এছাড়াও বিভিন্ন স্থানে জদি দখল ও দখলের চেষ্টার একাধিক অভিযোগ তথ্য হাতে এসেছে হত্যা মামলার আসামী সোহেলের বিরুদ্ধে। উল্লেখ্য, উপজেলার সদকী ইউনিয়নের দরবেশপুর গ্রামের সোহেল রানাসহ একই এলাকার আলিফার ছেলে কামাল প্রামাণিক, বাহাদুরের ছেলে রাসেল, আলতাফের ছেলে আলামিনসহ আরও ৪/৫ জনে অজ্ঞাতনামা ব্যক্তিকে আসামি করে গত শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) রাতে নিহতের নাতি শিপন মল্লিক কুমারখালী থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলা নম্বর -২৪। কিন্তু মামলা হওয়ার পর এতো দিন পেড়িয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত কোনো আসামিকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। গত সোমবার (১২ এপ্রিল) দুপুরে আবুহার মল্লিক নিজ বাড়ির পাশে ক্রয়কৃত জমিতে ঘর নির্মাণ করার জন্য মাটি ফেলছিলেন এসময় দরবেশপুর গ্রামের মৃত সামছুদ্দিন ডিলারে ছেলে সোহেল প্রামাণিকের নেতৃত্বে মৃত আলিফার ছেলে কামাল প্রামাণিক, বাহাদুরের ছেলে রাসেল, আলতাফের ছেলে আলামিনসহ আরও ৪/৫ জন এসে আবুহার মল্লিককে ওই জমিতে মাটি ফেলতে নিষেধ করেন আবুহার মল্লিক নিষেধ উপেক্ষা করে মাটি ফেলায় মৃত সামছুদ্দিন ডিলারে ছেলে সোহেল রানার নেতৃত্বে মৃত আলিফার ছেলে কামাল প্রামাণিক, বাহাদুরের ছেলে রাসেল, আলতাফের ছেলে আলামিনসহ আরও ৪/৫ জন তাকে ধাক্কা মেরে মাটিতে ফেলে দিয়ে লাথি মারতে আরম্ভ করে এর পর অভিযুক্ত ব্যক্তিরা পেটের ওপর বসে কিল, ঘুষি মারে এবং গলা চেপে ধরে গুরুতর আহত অবস্থায় রেখে দ্রুত চলে যায় তারা। এরপর স্বজনরা আবুহার মল্লিককে উদ্ধার করে কুমারখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নিয়ে গেলে হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ভর্তির পরামর্শ দেন এর পর হাসপাতালে দুইদিন ভর্তির পর বুধবার (১৫ এপ্রিল) সকালে ছাড়পত্র নিয়ে আবুহার মল্লিক বাড়িতে আসেন। বাড়িতে এসেই তিনি মারা জান। তবে নানা অপকর্মেও হোতো সোহেল সহ অন্যান্য আসামীরা এখন গ্রেফতার না হওয়াতে ব্যাপক ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী। এবিষয়ে কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) রাকিবুল ইসলাম জানান, আমরা আসামীদের গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছি। ইতি মধ্যেই বেশ কয়েকটি স্থানে গ্রেফতারের জন্য অভিজান চালিয়েছি, আসামীদের দ্রুতই আটক করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর