শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৫২ অপরাহ্ন

কুমারখালীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৭২ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৬:৫২ অপরাহ্ন

কুমারখালী নন্দলালপুর ইউনিয়নের বড়ুরিয়া গ্রামে প্রেমিক তুষারের বাড়িতে জোতমোড়া গ্রামের বেবি খাতুন নামে একটি মেয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন অবস্থা রয়েছে। ২৯ এপ্রিল শুক্রবার সকালে উপজেলার নন্দলালপুর ইউনিয়নের বড়ুরিয়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, স্থানীয় কলেজে লেখাপড়া কারণে সিরাজুল ইসলামের মেয়ে আফসানা আক্তার বেবি (১৮) ও বাবর হোসেনের ছেলে শামীম আহমেদ তুষার (১৭) । তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এ নিয়ে শুক্রবার সকালে এলাকায় জনসাধারণের মধ্যে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। এ সময় প্রেমিক তুষারের বাড়িতে ভিড় জমান এলাকাবাসী। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার সকাল থেকে ছেলে প্রেমিক তুষারের বাড়িতে যদুবয়রা ইউনিয়নের জতমোড়া গ্রামের এক তরুণী বিয়ের দাবিতে অনশন করছে। এর আগেও একই দাবিতে ছেলের বাড়িতে গিয়ে ওঠে মেয়েটি। সেই সময় ছেলের অভিভাবকরা বিয়ের আশ্বাস দিয়ে মেয়েটিকে তার বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। বর্তমানে ছেলের পরিবারের লোকজন বিয়ে দিতে অপারগতা প্রকাশ করে। প্রেমিকা বলেন, গত দেড় বছর আগে থেকেই লেখাপড়ার সুবাদে তুষারের সঙ্গে আমার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পারিবারিকভাবে আমার বিয়ের প্রস্তাব দেয়া হলেও তুষার আমাকে বিয়ে করতে চাচ্ছে না । অথচ আমাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে এখন বিয়ে করতে রাজি হচ্ছে না তুষার। ও আমাকে বিয়ে করবে বলে আশ্বাস দিয়েছে। গত কয়েক একদিন আগে থেকেই আমার সঙ্গে তুষার যোগাযোগ বন্ধ করে দেয়। আমি খোঁজ নিয়ে জানতে পারি, শামিম আহমেদ তুষার বাড়ির অবস্থান করছে। তুষারের সাথে তার শারিরীক সম্পর্কও হয়েছে বলেও ওই মেয়ে জানান। তুষারের পরিবারের দাবি, মেয়ে ও মেয়ের পরিবার পরিকল্পিতভাবে আমাদের ফাঁসানো চেষ্টা করছে। এই বিষয়ে কুমারখালী মহিলা পরিষদের পক্ষ থেকে, একটি টিম সরোজমিনে গেলে তুষারের পরিবারের লোকজন খারাপ আচরণ করে। মহিলা পরিষদের নেত্রী রওশন আরা নিলা বলেন, যেহেতু মেয়ে ও ছেলের বয়স হয় নি। সেহেতু আইনের মাধ্যমে সমাধান করার জন্য তাগিদ দিচ্ছি।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর