রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়ার লিজা ই-কমার্স ব্যবসায় সফল নারী উদ্যোক্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৩৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৪ অপরাহ্ন

নারীরা আর অলসভাবে ঘরে বসে থাকতে চান না। নিজেই স্বাবলম্বী হতে চান বর্তমান সময়ের আধুনিক নারীরা। নারীদের কর্মক্ষেত্রে অনলাইন এখন বাংলাদেশে খুবই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এতে ঘরে বসে অনেকে নারীই কর্মসংস্থানও সৃষ্টি হয়েছে। তরুণরা নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে অনলাইন ব্যবসা শুরু করছেন এবং এগিয়ে যাচ্ছেন। নারীদের প্রতিষ্ঠিত হয়ে দাঁড়ানোর খুব ভালো মাধ্যম হতে পারে এই অনলাইন ব্যবসা।

কুষ্টিয়া কুমারখালীর অনলাইন ব্যবসার সফল নারী উদ্যোক্তা আরিফিন পারভিন লিজার গল্প। ২০২০ সালের ২৮ আগস্ট স্বামী আকরামুল ইসলাম সোহাগ, বাবা তোফাজ্জল হোসেন, ছোট ভাই মুরছালিন আহমেদ ও তার বোন লায়লা তানজিন এর সহযোগিতা এবং সাহস নিয়ে যাত্রা শুরু করেন তরুণ উদ্যোক্তা আরিফিন পারভিন লিজা। ফেসবুকে একটি “আরিফিন’স ড্রিম” পেজ খুলে অনলাইন ব্যবসা শুরু করেন লিজা। আরিফিন পারভিন লিজা ১৯৮৩ সালের ১ ফেব্রুয়ারী কুমারখালী পৌরশহরে কুণ্ডু পাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। বাবা মোঃ তোফাজ্জেল হোসেন, তিনিও একজন ব্যবসায়ী।

মা আফরোজা খাতুন এক জন গৃহিণী। আরিফিন পারভিন লিজা জে এন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ালেখা শুরু করে কুমারখালী সরকারি পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করে, কুমারখালী সরকারি কলেজে এইচএসসি পরীক্ষার সময় ২০০১ সালে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন। কিন্তু থামেনি তার শিক্ষাজীবন। এরপর ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করে ২০১৬ সালে কুমারখালী সরকারি কলেজে অর্থনীতির প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। বৈবাহিক জীবনে তাদের একটি সন্তান রয়েছে। স্বামী, সন্তান আর শ্বশুর-শাশুড়িকে নিয়ে বেশ সুখেই কাটছে তার দিন। কিন্তু সংসার কর্মব্যস্ততার মধ্যে যেটুকু সময় অবশিষ্ট থাকে সেটুকু অলসভাবে তিনি কাটাতে চাননি সেই কারনেই অনলাইনে নিজের এলাকার পণ্য নিয়ে ব্যবসার চিন্তা করেন। সেই চিন্তার থেকে ফেসবুকে “আরিফিন’স ড্রিম” নামে একটা পেজ খোলেন এবং সেই পেজে স্থানীয় বিভিন্ন পণ্যের ছবি আপলোড করেন।

এর পর একটি দুটি করে অর্ডার আসতে থাকে। এখন তার অনলাইন শপে প্রতিদিনই পণ্যের ক্রেতা বাড়ছে অর্ডারও বাড়ছে। আরিফিন পারভিন লিজা ফেসবুক পেজে “আরিফিন’স ড্রিম” ভোক্তাদের রুচি ও পছন্দ অনুযায়ী পণ্য এনে থাকেন। পণ্যের মধ্যে রয়েছে কুমারখালীর বিখ্যাত মিষ্টি, শাড়ি, থ্রিপিস, বেডসিট, পিলোকভার, শোপিস ইত্যাদি। দাম ও মানের কারণে তিনি সাধারণের কাছে অল্প সময়ে ভালো অবস্থান করে নিতে সক্ষম হয়েছেন। এমন উদ্যোগ সম্পর্কে আরিফিন পারভিন লিজা বলেন, শুরুটা অনেক সহজ না হলেও পরিবার এবং বন্ধুদের সহযোগিতায় আমি এগিয়ে চলতে সাহস পেয়েছি। পড়াশুনা শেষ করে চাকরি ও সংসার করার পাশাপাশি নিজে কিছু একটা করার দৃঢ় ইচ্ছে থেকেই মাথায় আসে অনলাইন ব্যবসার প্ল্যান। তবে এ কাজে সবসময় তার স্বামী ও বাবা অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন।

সেই সঙ্গে শ্বশুরবাড়ির সাপোর্টের কথাও জানান তিনি। বর্তমান ব্যবসার অবস্থা সম্পর্কে তিনি বলেন, ভালো কেনাবেচা চলছে এবং ধীরে ধীরে আরও জনপ্রিয় হয়ে উঠছে তার অনলাইন পেজ “আরিফিন’স ড্রিম”। ভবিষ্যতে তিনি একজন সফল নারী উদ্যোক্তা হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত দেখতে চান। লিজা বলেন, আমার স্বপ্ন ছিল একজন উদ্যোক্তা হওয়ার। সেই লক্ষ্যে এগিয়ে যাচ্ছি সঙ্গে পরিশ্রম করে যাচ্ছি। বলতে গেলে অনেকটাই শূন্য থেকে শুরু করেছিলাম। তাই অন্য নারীদেরও উচিত হবে শুধু শুধু ঘরে বসে না থেকে সংসারের পাশাপাশি কিছু একটা করা। স্বপ্ন, সামান্য পুঁজি আর পরিশ্রম থাকলেই অনেক দূর এগিয়ে যাওয়া সম্ভব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর