সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

অবশেষে ক্ষমা চাইলেন দোয়ারাবাজার থানার ওসি

অনলাইন ডেস্ক / ২৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

বিনা পরোয়ানায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে গ্রেফতারের ঘটনায় অবশেষে ক্ষমা চাইলেন সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার থানার ওসি মোহাম্মদ নাজির আলম।

রোববার সন্ধ্যায় দোয়ারাবাজার উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভায় তিনি বলেন, আমিও একজন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আমার পরিবারে অনেকেই মুক্তিযোদ্ধার সন্তান রয়েছেন।

পরে মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে গ্রেফতারের বিষয়ে দুঃখ প্রকাশ করে মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে ক্ষমা চেয়ে তাদের সঙ্গে করমর্দন করেন ওসি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জ-৫ (ছাতক-দোয়ারাবাজার) আসনের সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল মমিন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার সফর আলী, সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার মনফর আলী, বীর প্রতীক আব্দুল হালিম, বীর প্রতীক আব্দুল মজিদ, বীর মুক্তিযোদ্ধা সামছুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা লালা মিয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা তাজুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা শওকত আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল বারিক, জমির আলী প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২৫ মার্চ সন্ধ্যায় বিনা পরোয়ানায় উপজেলার লক্ষীপুর ইউনিয়নের বক্তারপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধার সন্তান আনোয়ারকে একই ইউনিয়নের শুড়িগাঁও তার শ্বশুরবাড়ি গ্রেফতার করে কোর্টে চালান দেয় দোয়ারাবাজার থানা পুলিশ।

এ ঘটনার প্রতিবাদে ২৬ মার্চ দোয়ারাবাজার থানার ওসি মোহাম্মদ নাজির আলমের প্রত্যাহারের দাবিতে মিছিল ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়। সেখানে ওসিকে ৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটামসহ ২৬ মার্চের সব কমসূর্চি বর্জন করেন বিক্ষুব্ধ মুক্তিযোদ্ধারা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর