বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ার মিরপুরে জিকে ক্যানেল থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধার বেগম জিয়ার সুস্থ্যতা ও রোগমুক্তি কামনা করে কুষ্টিয়া জেলা বিএনপির দোয়া দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সুস্থতা ও দীর্ঘায়ূ কামনায় কুমারখালী থানা-পৌর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠন সমূহের উদ্যোগে দোয়া মাহফিল খান খালিদ হোসেনের মৃত্যুতে মেহেদী রুমীর শোক পবিত্র মাহে রমজানের চাঁদ দেখা গেছে, কাল থেকে রোজা কুমারখালীতে প্রতিবন্ধী যুবতীকে গণধর্ষণ , গ্রেফতার ২ করোনা আক্রান্ত লালনশিল্পী ফরিদা পারভীন হাসপাতালে করোনায় সংগীত পরিচালক ফরিদ আহমেদের মৃত্যু মতিঝিল ও ওয়ারীর সব থানায় ‘এলএমজি চৌকি’ সব রেকর্ড ভেঙে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু ৮৩

কুষ্টিয়ায় দেশীয় তামাক শিল্প রক্ষার দাবিতে চাষীদের অনশন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৩৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১১:৫০ অপরাহ্ন

বিদেশী কোম্পানীর আগ্রাসন থেকে তামাক শিল্প মুক্ত করা, তামাকের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা ও দেশীয় তামাক শিল্প রক্ষার দাবিতে অবস্থান কর্মসূচী ও অনশন করেছে তামাক চাষী কল্যাণ সমিতি। সোমবার কুষ্টিয়া পৌরসভা চত্বরে এই অনশন কর্মসূচী পালন করে জেলার তামাক চাষীরা। গতকাল সোমবার সকাল ১১ টা থেকে শুরু হওয়া এই অবস্থান কর্মসূচী ও অনশনে যোগ দেন জেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত কয়েকশত তামাক চাষী। দেশীয় তামাক চাষী কল্যাণ সমিতির ব্যানারে এই কর্মসূচীতে যোগ দেন তারা। বিকেল ৩ পর্যন্ত এই কর্মসূচী পালন করাকালীন কুষ্টিয়া পেরসভার মেয়র আনোয়ার আলী অনশনস্থলে এসে আলোচনার মাধ্যম তাদের দাবি সরকারের উর্দ্ধতন মহলের কাছে পৌছে দেওয়া হবে জানালে অনশন থেকে সরে আসেন তামাকচাষীরা। অনশনে অংশ নেওয়া কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার বড়গাংদিয়া থেকে আগত তামাকচাষী মহিবুল হক জানান, তামাক কুষ্টিয়া জেলার অন্যতম একটি অর্থকারী ফসল। তামাক চাষের সাথে জেলার প্রায় কয়েক লক্ষ কৃষক জড়িত। শুধু কৃষক নয় এই শিল্পে কর্মসংস্থান হয়েছে কয়েক লক্ষ মানুষের। সরকার তামাকজাত পণ্য থেকে বিপুল পরিমান রাজস্ব পেয়ে থাকে। কিন্তু এই শিল্পের বাস্তব অবস্থা অত্যন্ত লাজুক। এই শিল্প থেকে সবাই মুনাফা ভোগ করছে কিন্তু তামাক চাষীরা অবহেলিতই রয়ে যাচ্ছে। অনশন কর্মসূচীতে অংশ নেওয়া সফিকুল নামে এক চাষী জানান, আমরা অনেকটা বাধ্য হয়ে আজ অনশন কর্মসূচী দিতে বাধ্য হয়েছি। তামাক চাষীরা আজ বিভিন্নভাবে হয়ারনী আর প্রতরনার স্বীকার। এই খাতকে রক্ষা করা না গেলে এই খাতের সাথে জড়িত কয়েক লক্ষ মানুষকে পথে বসতে হবে। আমরা আমাদের চাষকৃত তামাকের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করার পাশাপাশি নানা রকম হয়রানী থেকে পরিত্রান পেতে চাই। অনন কর্মসূচীতে অংশ নেওয়া তামাকচাষীরা আরো জানান, আগে ২৫-৩০টি দেশীয় কোম্পানী চাষীদের কাছে থেকে তামাক ক্রয় করত। তাতে কৃষক তামাকে ন্যায্য মূল্য পেতো। কিন্তু দুটি বিদেশী কোম্পানীর আগ্রাসনে টিকতে না পেরে অধিকাংশ দেশীয় কোম্পানী পুঁজি হারিয়ে বাজার ছেড়েছে। অনেক কোম্পানী দেওলীয়া হয়ে গেছে। অনেকে এই ব্যবসা ছাড়তে বাধ্য হয়েছে বা বাধ্য করেছে। আর এই সুযোগে বিদেশী কোম্পানীগুলো ইচ্ছে মত দামে তামাক ক্রয় করছে। এতে ন্যায্য মূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছে তামাকচাষীরা। তারা এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। পাশাপাশি তাদের দাবি না মানা হলে লাগাতর কঠোর কর্মসূচীর ঘোষনা দেন তামাক চাষীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর