সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় নৌকা ও মশাল প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, যুবলীগ ও জাসদ নেতাসহ আহত ৭

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৪৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

হঠাৎ করেই উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ভেড়ামারা পৌরসভার নির্বাচন। তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নৌকা এবং মশাল প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের জের ধরে ভাংচুর করা হয়েছে ৩টি মোটরসাইকেল এবং নৌকা প্রতীকের অফিস। পিটিয়ে গুরুত্বর আহত করা হয়েছে ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মানিক মিয়াকে। তাকে গুরুত্বর আহতাবস্থায় ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয় জাসদ নেতা আনসার আলী। তাকেও কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলার পর মশাল প্রতীকের সমর্থকরা লাঠি নিয়ে শহরে প্রদক্ষিন করায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পৌরসভা নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার ও ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোহেল মারুফ এবং আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর নিয়ন্ত্রনে থাকা ভেড়ামারা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহাজালাল’র নেতৃত্বে দ্রুত পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নেয়। যে কোন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন এবং র‌্যাবের টহল জোরদার করা হয়েছে। প্রত্যাক্ষদর্র্শী সূত্র জানিয়েছে, গতকাল সন্ধ্যায় জাসদ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আনোয়ারুল কবীর টুটুলের মশাল প্রতীকের নির্বাচনী ভিডিও প্রজেক্টর’র মাধ্যমে প্রচার প্রচারনা চালানোর সময় নৌকা এবং মশাল প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে বাকবিতান্ড শুরু হয় এবং উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে উপস্থিত হয় ভেড়ামারা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মানিক মিয়া। এসময় তার উপর হামলা চালিয়ে তাকে গুরুত্বর আহত করে। এ ঘটনায় জাসদ নেতা আনসার আলীসহ আরো ৬ জন আহত হয়। ভাংচুর করা হয় নৌকা প্রতীকের অফিস ও ৩টি মোটরসাইকেল। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়। এ ঘটনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে শহরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রিনে আনতে নির্বাচনের রির্টানিং অফিসার সোহেল মারুফ’র নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে। শহরে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। জোরদার করা হয়েছে র‌্যাব’র টহল। এ ঘটনার পর ভেড়ামারা পৌরসভার মেয়র ও নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলহাজ্ব শামিমুল ইসলাম ছানা বলেছেন, মশাল প্রতীকের সমর্থকরা পরিকল্পিত ভাবে যুবলীগ নেতার উপর হামলা চালিয়েছে। তাকে গুরুত্বর আহত করা হয়েছে। এবং নৌকা প্রতীকের অফিস ভাংচুর করেছে। তিনি জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর