বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:১৫ অপরাহ্ন

স্বধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে বিএনপির খুলনা বিভাগীয় কমিটির সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ১৭৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৭:১৫ অপরাহ্ন

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের স্বধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন খুলনা বিভাগীয় কমিটির প্রথম সভা আজ ৯ জানুয়ারি শনিবার সকাল ১১টায় বিভাগীয় কমিটির সম্মানিত আহ্বায়ক দলের ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চেীধুরীর সভাপতিত্বে যশোরস্থ হোটেল ওরিয়ন ইন্টারন্যাশনালে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উদযাপন কমিটির ৩৮জন সদস্য বক্তব্য রাখেন। সভায় যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী জাতীয় কমিটির নির্দেশনায় বিভাগীয় পর্যায়ে ব্যাপক ভাবে অত্যন্ত জাকজমকপূর্ণ ও বর্ণাঢ্য আয়োজনের মাধ্যমে উদযাপনের ব্যাপারে বক্তারা সভায় বক্তব্য রাখেন। সভায় সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের সিদ্ধান্ত কে স্বাগত জানিয়ে কেন্দ্র থেকে দেশব্যাপী কর্মসূচী পালানের সিদ্ধান্ত গ্রহন করায় দেশনায়ক তারেক রহমান কে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলা হয় তার সূচিন্তিত ভাবনা বাস্তবায়নে খুলনা বিভাগীয় কমিটি সফল ভাবে উদযাপনের সকল কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে। সভায় খুলনা বিভাগের স্বাধীনতা যুদ্ধকালীন সময়ের স্মৃতি বিজড়িত স্থান সমুহে সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের বর্ণাঢ্য আয়োজন, বীরমুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, মুক্তিযুদ্ধের যুদ্ধকালীন ঘটনাবলী লিপিবদ্ধ করে প্রচার ও প্রকাশনা ক্রোড়পত্র প্রকাশ, প্রচারপত্র, পোষ্টার প্রকাশসহ মুক্তিযুদ্ধের সময় খুলনা বিভাগীয় যাবতীয় ঘটনাবলী জাতির সামনে তুলে ধরার প্রস্তাব করা হয়। সভায় আগমী প্রজন্ম বিশেষত: ছাত্র,যুবক এবং বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতহাস তুলে ধরবার প্রয়োজনীয় সকল পদপে গ্রহনের প্রস্তাব গৃহীত হয়। সভা থেকে খুলনা বিভাগের ১০জেলা ও মহানগরীতে একযোগে কর্মসূচী পালন , থানা ইউনিয়ন গ্রাম পর্যায়ে কর্মসূচী পালনের জন্য জেলায় জেলায় প্রস্তুতি সভা , প্রস্তুতি কমিটি গঠন ,উপকমিটি গঠনসহ কর্মসূচী ও সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহনের প্রস্তাব করা হয়। খুলনা বিভাগের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস,কৃষ্টি সাংস্কৃতি জাতীয়ভাবে তুলে ধরার জন্য সুবর্ণ জয়ন্তী উৎসবের মাধ্যমে করার প্রস্তাব নেয়া হয়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মহানায়ক বীরমুক্তিযোদ্ধা,মুক্তিযুদ্ধের ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তমের মুক্তিযুদ্ধের সাহসী ও বীরোচিত ভূমিকা, আধুনিক বাংলাদেশ গড়ায় তার অবদানের প্রকৃত ইতিহাস জাতির সামনে তুলে ধরার জন্য সুবর্ণ জয়ন্তীর মাধ্যমে পদক্ষেপ গ্রহণের প্রস্তাব করা হয়। সভায় যুদ্ধকালীন সময়ে রনাঙ্গনের বীরমুক্তিযোদ্ধা শহীদ জিয়াউর রহমানের পরিবারের অত্যাচার নির্যাতন এর শিকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বলা হয় যে, শহীদ জিয়াউর রহমানের পরিবার স্বাধীনতা উত্তর বাংলাদেশ ও জাতি গঠনে বিশেষ ভ’মিকা পালন করেছে।সভায় বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মশিউর রহমান, বীরমুক্তিযোদ্ধা সৈয়দ মেহেদী আহমেদ রুমি, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইাসলাম মন্জু, স্থানীয় সরাকার বিষয়ক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্য সোহরাব উদ্দিন, প্রকাশনা সম্পাদক হাবিবুল ইসলাম হাবিব, তথ্য সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, সহসাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, বাবু জয়ন্ত কুমার কুন্ডু, কৃষি সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, সহতথ্য সম্পাদক আমিরুজ্জামান খান শিমুল, সহ ধর্ম সম্পাদক অমলেন্দু দাস অপু, যশোর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপিকা নার্গিস বেগম, খুলনা মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মনি, খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি শফিকুল আলম মনা, ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অ্যাড. মশিউর রহমান, যশোর জেলা বিএনপির সদস্য সচিব অ্যাড. সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, নড়াইল জেলা বিএনপির সভাপতি বিশ্বাস জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম, সাতীরা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক সৈয়দ ইফতেখার আলী, মেহেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি মাসুদ অরুন, মাগুরা জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আলী আহমদ সদস্য সচিব আক্তার হোসেন, বাগরেহাট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক এটিএম আক্তার হোসেন তালিম, সদস্য সচিব মোজাফফর আলম , চূয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মাহমুদ হাসান খান বাবু, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য সাহারুজ্জামান মোর্তজা, ফরিদা ইয়াসমিন, আয়েশা সিদ্দকী মনি, ফিরোজা বুলবুল কলি, সাবিরা নাজমুল মুন্নি, এমএ সালাম, ওয়াহিদুজ্জামান দিপু, ঝিনাইদহ জেলা বিএনপির সদ্য সচিব অ্যাড. এমএ মজিদ, বাগেরহাট জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক লায়ন ড.শেখ ফরিদুল ইসলাম, খায়রুজ্জামান শিপন, প্রকেীশলী জাকির সরকার, আবু সাঈদ শেখ প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর