রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
পরীক্ষা নেওয়ার দাবীতে কুষ্টিয়া সরকারি কলেজে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা সৎ, নির্ভীক সাংবাদিকতা দেশ-জাতির জন্য মঙ্গল বয়ে আনে: খাদ্যমন্ত্রী উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ আজ সুখবর জানাবেন প্রধানমন্ত্রী কারাবন্দি লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে তদন্ত কমিটি করোনা সংকটেও থেমে নেই বেগম হামিদা সিদ্দিক মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকের কোচিং বাণিজ্যে মেহেরপুরে মোটরসাইকেল ও রোলার এর মুখোমুখি সংঘর্ষে ২ শ্রমিক আহত খোকসায় মোটরসাইকেল আরোহী গুরুতর আহত মেহেরপুর গাংনীতে ৫৫ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার বিক্ষোভের চেষ্টা, শাহবাগ থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০ শিক্ষার্থী আটক কুষ্টিয়ায় আমরাই ফাউন্ডেশনের যাত্রা শুরু

মাদক সেবনকালে কুষ্টিয়া জেলা আ:লীগের সভাপতির ছেলে ও ভাতিজাসহ গ্রেপ্তার ৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: / ৮৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২:২৬ পূর্বাহ্ন

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলা শহরের কৃষি ফার্মে বসে মাদক সেবনকালে কুষ্টিয়া জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও খোকশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সদর উদ্দিন খানের ছেলে নাজমুস সালেহীন খান (২২) এবং সদর উদ্দিন খানের ভাই রহিম উদ্দিন খানের ছেলে সিয়াম মাহমুদ (২১)সহ ৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। নাজমুস ও সিয়ামের বাড়ী কুষ্টিয়া জেলার খোকশা উপজেলার সমসপুর গ্রামে। গ্রেপ্তারকৃতদের আজ শনিবার সকালে রাজবাড়ীর আদালতে পাঠানো হয়েছে। পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যা রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জেলার পাংশা উপজেলা শহরের কৃষি ফার্মে অভিযান পরিচালনা করেন থানা পুলিশের সদস্যরা। সে সময় নাজমুস সালেহীন খান ও সিয়াম মাহমুদসহ কুষ্টিয়া জেলার খোকশা কলেজপাড়া গ্রামের দীলিপ বিশ্বাসের ছেলে রুপক বিশ্বাস জয় (২০), পাংশা পৌরসভার সত্যজিৎপুর গ্রামের মোবারক খানের ছেলে লিটন খান (২৭) ও নারায়নপুর গ্রামের মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে শাওয়ানুর রহমান (২৭), পাংশা কলেজ পাড়ার গোলাম শাহরিয়ারের ছেলে হাসিবউদ্দিন (২৫) ও আব্দাস উদ্দিনের ছেলে সাইদুর রহমান (২৬) এবং কালুখালী উপজেলার আমবাড়ীয়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে সজিবুল ইসলাম (২৫) কে গ্রেপ্তার করা হয়। সে সময় গ্রেপ্তারকৃতরা মাদক সেবন করছিলো। পরে শনিবার সকালে তাদেরকে রাজবাড়ীর আদালতে পাঠানো হয়। উল্লেখ্য, সদ্য যোগদানকৃত রাজবাড়ীর পুলিশ এমএম শাকিলুজ্জামান গত বৃহস্পতিবার তার সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় বলেছিলেন, “মাদক বড় একটি সমস্যা। তবে মাদকের ব্যাপারে কোন ছাড় নেই। যাকে যে অবস্থায় পাওয়া যাবে তার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।” পুলিশ সুপারের এই ঘোষনার পর পাংশার এই অভিযান জনমনে স্বস্থির সৃষ্টি করছে। এধারা অব্যাহত থাকবে বলেও সাধারণ মানুষ মনে করছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর