মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :

কুষ্টিয়ায় দরিদ্র ভিক্ষুক ও তার স্বজনদের জমি দখল করে ভোগ করছে আ’লীগ নেতা গোলাম মোস্তফা

নিজস্ব প্রতিবেদক / ২৪৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৬:২৫ পূর্বাহ্ন

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার পশ্চিম আব্দালপুর গ্রামের এক দরিদ্র পরিবারের প্রায় সাড়ে ৪ বিঘা জমি জোর করে দখলে রেখেছে প্রভাবশালীরা। স্থানীয়রা সালিশ করে করে ওই জমি ছেড়ে দিতে বললেও কোন কাজ হয়নি। উল্টো ওই প্রভাবশালীদের হুমকিতে আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে পরিবারটি। ভুক্তভোগি রাশেদুল ইসলাম এ ব্যাপারে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত অভিযোগও করেছেন। এর আগে জমি ফেরত চাওয়ায় আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম মোস্তফার রোষানলে পড়ে পরিবারগুলো। আওয়ামী লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে নানা অপকর্ম করছেন গোলাম মোস্তফা ও তার লোকজন।

পশ্চিম আব্দালপুর গ্রামের আফাজ উদ্দিনের ছেলে রাশিদুল ইসলাম তার লিখিত অভিযোগে জানান, তিনি ও তার ভিক্ষুক ভাই পৈত্রিক সূত্রে পশ্চিম আব্দালপুর মৌজায় (আরএস খতিয়ান-৮৭২, আরএস দাগ-২০৯৫, আরএস খতিয়ান ১৪৬৯, আর দাগ ৫টি ও আর এস খতিয়ান ১৪৬৮, আরএস দাগ ২১৭৫) ৪.৫১ বিঘা জমির মালিক। সম্প্রতি একই এলাকার আব্দুল আজিজের ছেলে গোলাম মোস্তফার, মো. মজিদ ও নজরুল ওই জমি জোর করে দখল করে নেয়। স্থানীয় মাতবররা এ ব্যাপারে একাধিকবার সালিশ বৈঠক করে ওই জমি প্রকৃত মালিকদের ফিরিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেলেও তা আমলে নেননি এলাকায় প্রভাবশালী গোলাম মোস্তফাও তার ভাইয়েরা।

ভুক্তভোগিরা এ ব্যাপারে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন ও পুলিশ সুপার এস এম তানভির আরাফাতের কাছে লিখিত অভিযোগও করেছে। অভিযোগের ব্যাপারে গোলাম মোস্তফা মুঠোফোনে অসংলগ্ন কথাবার্তা বলেন। তিনি একবার বলেন, রাশিদুলদের কাছ থেকে তার বাবা আব্দুল আজিজ বেশ জমি এর আগে কিনেছেন। তবে কেনা জমির থেকে আরো বেশি জমি তাদের দখলে আছে কিনা সেটা তার জানা নেই। আবার তিনি বলেন, এর আগে তারা কিছু জমি রাশিদুলদের ফিরিয়ে দিয়েছেন। তবে তিনি বার বার তার সাথে সরাসরি দেখা করার জন্য সাংবাদিবদের অনুরোধ করেন।

আর রাশিদুল বলেন, গোলাম মোস্তফা দলের প্রভাব দেখিয়ে তাদের প্রায় ১০ বিঘা জমি দখল করে রেখেছে। এর আগে শালিসে জমি ফিরিয়ে দেয়ার কথা বললেও আর দেয়নি। বরং আব্দালপুর ক্যাম্পে আটকে রেখে নির্যাতন করা হয়। এখন ডিসি ও এসপির কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। সেখানে প্রতিকার পাব বলে আশা করছি।
জেলা প্রশাসক মোঃ আসলাম হোসেন বলেন- জমি দখলের বিষয়ে অভিযোগ এসেছে। এ বিষয়ে দুই পক্ষকে ডেকে শুনানি করা হবে। যদি জমি দখল করে কেউ ভোগ দখল করে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ভূমি দস্যূরা যত প্রভাবশালী হোক না কেন তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। ’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

এক ক্লিকে বিভাগের খবর